Last Update: 2013-09-19 02:02:08 pm

জিম্বাবুয়ের ঐতিহাসিক জয়

ডেস্ক রিপোর্ট 2013-09-15 07:28:56 pm

কোনো কোনো প্রতীক্ষা যেন শেষই হতে চায় না।
কোনো কোনো পথচলা এত দীর্ঘ হয় যে, গন্তব্যে পৌঁছে মনে হয়, মায়াবী বিভ্রম নয় তো!
জিম্বাবুয়েরও তাই মনে হবে কয়েকটা দিন। ‘কত দূর আর কতদূর ...’ ব্যাপারটা সেরকমই ঘটল ওদের বেলায়। একটি জয়ের দিকে চাতক পাখির মতো তাকিয়েছিল তারা এতদিন। কতদিন? দীর্ঘদিন। সেই কবে ২০০১-এ কোনো বড় দলের বিপক্ষে পাওয়া জয়ের স্মৃতির কার্নিশে ধুলো জমে গিয়েছিল। ১২ বছর দীর্ঘ সময়। একযুগ পর বাংলাদেশ বাদে আবার কোনো বড় দলকে হারানোর গৌরবে গৌরবান্বিত হল আফ্রিকার দেশটি। এবার তাদের ‘শিকার’ পাকিস্তান। নিজেদের ভঙ্গুর ব্যাটিং শেষদিন যাদের পতন ডেকে আনল! জিম্বাবুয়ের জন্য শেষদিন হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন মিসবাহ-উল-হক। ব্রেন্ডন টেলররা সেই হুমকি উপেক্ষা করে শনিবার হারারেতে ২৪ রানে দ্বিতীয় টেস্ট জিতে দু’ম্যাচের সিরিজে সমতা আনলেন ১-১-এ।
জিম্বাবুয়ের ঐতিহাসিক জয়ে বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারেননি পাকিস্তান। মিসবাহ যেন ট্রাজিক হিরো! রণাঙ্গনে একাই লড়লেন তিনি। ৭৯-তে ‘অক্ষত’ থাকলেন শেষ পর্যন্ত। কিন্তু যুদ্ধে হেরে গেল তর বাহিনী। ‘সেনাপতি’ অপরাজিত। তার বাহিনী পরাস্ত। টেলরের সঙ্গে ট্রফি ভাগাভাগি করে নেয়ার সময় মিসবাহর হাসিটা তাই ছিল মলিন।
জিম্বাবুয়ে দিনটা শুরু করেছিল জয় থেকে পাঁচ উইকেট দূরে থেকে। পাকিস্তানও খুব বেশি দূরে ছিল না। তাদের দরকার ছিল ১০৬। মিসবাহ ছিলেন। সফরকারীদের আশাও ছিল। যখন তীর দৃষ্টির সীমানায় তখনই ডুবল তাদের আশার তরী। লাঞ্চের পর লক্ষ্য থেকে ৪৭ রান দূরে ছিল পাকিস্তান। হাতে তাদের দুই উইকেট। লাঞ্চের পর দ্রুত কিছু রান উঠল। তবে জিম্বাবুয়েকে বেশিক্ষণ অপেক্ষা করতে হয়নি। নতুন বল নেয়ার পর এক ওভারেই হারারে রোমাঞ্চের সমাপ্তি। রাহাতের রানআউটে মাঠে, সাজঘরে এবং সম্ভবত গোটা হারারেতে শুরু হয়ে যায় উৎসব। সেই উৎসরের রঙ সাদা না কালো, সেটা নিয়ে মাথা ঘামানোর সময় কই রবার্ট মুগাবের দেশটির।
লাঞ্চের পর পুরনো বলে আরও চার ওভার খেলা বাকি ছিল। মিসবাহ ওই ২৪ বল নিজে খেলার ব্যাপারে আগ্রহী ছিলেন। দ্বিতীয় সেশনের দ্বিতীয় বল তিনি তুলে দিয়েছিলেন আম্পায়ারের মাথার ওপর দিয়ে। তার ভাগ্য ভালো, মিডঅনের ফিল্ডার অল্পের জন্য ক্যাচ মিস করেন। পরের দুই ওভারে নিজেকে সংযত রাখেন পাকিস্তান অধিনায়ক। এ সময় জুনায়েদ খানকে স্ট্রাইক নেয়া থেকে বিরত রাখেন তিনি। ৭৯তম ওভারে এক্সট্রা কভার দিয়ে নয়টি চারের একটি হাঁকান মিসবাহ। এরপর আরও কিছু খুচরো রান ‘চুরি’ করার পর মিডউইকেট দিয়ে বাউন্ডারি। পঞ্চম বলে সিঙ্গেল নিয়ে ওই ওভারে তার পুঁজি দাঁড়ায় ১১ রান। ৮০তম ওভারে আরও দুটি চার। কিন্তু জিম্বাবুয়ে যেটা চাইছিল সেটিই হয়। মিসবাহর দ্বিতীয় বাউন্ডারি আসে ওভারের শেষ বলে। তার মানে, নতুন বলে স্ট্রাইকে জুনায়েদ।
দিনের শুরুতে দুটি উইকেট নেয়া চাতারা নতুন বল পান। তার প্রথম ডেলিভারি আউটসুইঙ্গার। বেঁচে যান জুনায়েদ। কিন্তু কতক্ষণ। চতুর্থ বল সোজা গালিতে ম্যালকম ওয়ালারের হাতে। নতুন ব্যাটসম্যান রাহাত আলী স্ট্রাইকে। পরের বলে এক রান নিয়ে হয়তো স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছিলেন রাহাত। ১১ নম্বর ব্যাটসম্যানকে ‘বাঘের’ মুখে ছেড়ে দেয়াটা সমীচীন মনে করেননি মিসবাহ।
ওভারের শেষ বল কভারে ঠেলে দিয়ে দুই পা এগিয়েও ফিল্ডার খুব কাছে দেখে পেছনে হটেন। রাহাতকে ফিরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করেছিলেন তিনি। কিন্তু ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে গেছে। ফিল্ডারের হাতে বল। নন-স্ট্রাইক প্রান্তে সহজ রানআউট। ২৩৯-এ থামে সফরকারীদের দ্বিতীয় ইনিংস। ওদিকে পাকিস্তানের বিপক্ষে তৃতীয় টেস্ট জয়ের আনন্দে তেন্দাই চাতারারা উৎসবে মাতোয়ারা। এই পরাজয়ে পাকিস্তান আইসিসির টেস্ট র‌্যাংকিংয়ে চতুর্থ থেকে ষষ্ঠ স্থানে নেমে এলো। জিম্বাবুয়ে রয়েছে নবম স্থানে। বাংলাদেশ থেকে তাদের রেটিং
পয়েন্ট ২৪ বেশি।
 

এই সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন পাঠকের মন্তব্য (0)    মোট দর্শন(2771)

You can switch to English and Bangla anytime by pressing Ctrl+y in windows and linux (Command+y in mac)



Can't read the image? click here to refresh

X
(4:50 AM) raj: sdf
(4:50 AM) raj: o k
(5:50 AM) raasdsdf: sddsfsdff
(5:50 AM) raasdsdf: df fsdf sdf
(5:50 AM) raasdsdf: df sdfsdf
(5:50 AM) raasdsdf: sdfsdf
(5:50 AM) raasdsdf: sdf sdf
(5:50 AM) raasdsdf: sdfa sdf sdfsf
(5:51 AM) raasdsdf: dsf sdfsdf sdf
(5:51 AM) raasdsdf: sdfas sdf sfsdf
(5:51 AM) raasdsdf: sdf sdfasdfasdf
(5:51 AM) raasdsdf: sd asfasdf
(5:51 AM) raasdsdf: sdf sfasdfsadfsdf
(5:51 AM) raasdsdf: sdf asdfsdf
(3:14 AM) raj: .
(9:37 AM) :
(5:49 AM) irfan: best Bangladeshi news paper
(8:49 AM) :
(11:25 AM) arnob: Nice web portal with huge features anybody here
(6:21 AM) :
(8:25 AM) rabin: hi
(2:12 PM) আমাদের বানারীপাড়া: আমাদের বানারীপাড়া
(1:32 PM) :
(9:25 PM) পরি: আমার বিয়ে হয়েছে এই চার মাস চলছে। আমার স্বামী আমাকে রেপ করে বিয়ে করেছেন।আমার স্বামী খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিবিএ তে পড়ছে। আমার বাবা মা দুজনই মৃত।এজন্য তার পরিবার থেকে মেনে নিবে না।ছেলে এখন অন্য মেয়ের সাথে রিলেশনে ব্যস্ত। আমার সাথে যৌতুক চেয়ে তালাকের হুমকি দিয়েছিল। ২ সপ্তাহ আগে জানতে পারলাম সে নাকি তালাক দিয়েছে কোন উকিলের কাছে যেয়ে দিয়েছে।কিন্তু আমার কাছে এখনো কোনো কাগজ বা নোটিস আসেনি। এই অবস্হায় আমি তাকে কিভাবে কঠোর শাস্তি প্রদান করিতে পারি। :-(
(9:30 PM) পরি: উল্লেখ্য তার সাথে ২ সপ্তাহ ধরে যোগাযোগ সম্পূর্ন বন্ধ। শেষ কথার দিন আমাকে হুমকি দিয়েছিল, আমি তাকে ফোন করলে আমার নামে হ্যারাজমেন্ট মামলা করবে। আমার কাছে বিয়ের লিগাল কাবিন আছে
(2:54 AM) :
(1:27 AM) :