Last Update: 2013-09-19 02:02:08 pm
সংসদের প্রশ্নোত্তরে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

বিদ্যুতের বকেয়া ৩ হাজার কোটি টাকা

ডেস্ক রিপোর্ট 2013-06-14 06:58:53 pm

ঢাকা: বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খণিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ এনামুল হক বলেছেন, ‘সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের কাছে বিদ্যুতের বকেয়া ৩ হাজার ১৯৯ কোটি টাকা। তবে সর্বোচ্চ ১ হাজার ১৪২ কোটি টাকা বকেয়া  পল্লী বিদ্যুতের কাছে।

বৃহস্পতিবার সরকারি দলের সদস্য মো. নুরুল ইসলাম সুজনের টেবিলে উপস্থাপিত এক প্রশ্নের জবাবে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী সংসদকে এসব তথ্য জানান। পৌনে একঘণ্টা বিলম্বে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে জাতীয় সংসদের অধিবেশন ৯ম কার্যদিবস শুরু হয়। সংসদে বিরোধী দলের সদস্যরা উপস্থিত আছেন।

বুধবার স্পিকার বৃহস্পতিবার বিকেল ৩টা পর্যন্ত সংসদ অধিবেশন মুলতবি করেছিলেন।

অধিরেবশনে এম আবদুল লতিফের লিখিত প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘২০০৯-২০১০ অর্থবছর থেকে গত অর্থবছর পর্যন্ত গ্যাস বিতরণে কোনো সিস্টেম লস নেই।’

বেগম সানজিদা খানমের প্রশ্নের জবাবে এনামুল হক বলেন, ‘পরিকল্পনা অনুযায়ী বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলো চালু হলে ২০১৫ সাল থেকে দেশের চাহিদা অনুযায়ী বিদ্যুৎ সরবরাহ করা সম্ভব হবে।’

আমিনা আহমেদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘সারাদেশে নতুন বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য প্রাপ্ত আবেদনের সংখ্যা প্রায় পাঁচ লাখ ৩৬ হাজার। সবচেয়ে বেশি আবেদন করা হয়েছে পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডে সাড়ে চার লাখ।’

শওকত মোমেন শাহজাহানের প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, গত অর্থবছরে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডকে ৬ হাজার ৩৫০ কোটি টাকা ভর্তুকি প্রদান করা হয়েছে। একই অর্থবছরে তেল খাতে বিপিসির ঘাটতির পরিমাণ ১০ হাজার ৫৫১ কোটি ৭৪ লাখ টাকার বিপরীতে ৫ হাজার ৮৪৯ কোটি ৫০ লাখ টাকা ভর্তুকি প্রদান করা হয়েছে।

সংসদে ২২২টি আইন পাস হয়েছে
বেগম আশরাফুন নেছা মোশারফের প্রশ্নের জবাবে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ বলেন, ‘বর্তমান সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর জাতীয় সংসদের ১৭টি অধিবেশনে ২২২টি আইন প্রণয়ন করা হয়েছে। এরমধ্যে প্রথম অধিবেশনে ৩২, দ্বিতীয় অধিবেশনে ২৩, তৃতীয় অধিবেশনে ১১, চতুর্থ অধিবেশনে ২৩, পঞ্চম অধিবেশনে ২৪, ষষ্ঠ অধিবেশনে ১৩, সপ্তম অধিবেশনে চার, অষ্টম অধিবেশনে ছয়, নবম অধিবেশনে আট, দশম অধিবেশনে দুই, ১১তম অধিবেশনে সাত, ১২তম অধিবেশনে ১৫, ১৩তম অধিবেশনে ১৫, ১৪তম অধিবেশনে ১৩, ১৫তম অধিবেশনে ছয়, ১৬তম অধিবেশনে ১৩ এবং ১৭তম অধিবেশনে সাতটি আইন প্রণয়ন করা হয়েছে।

দেশের উৎপাদিত চিনিতে চাহিদার ১০ শতাংশ পূরণ হয়
ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিনের প্রশ্নের জবাবে শিল্প মন্ত্রী দিলীপ বড়ুয়া বলেন, ‘চিনি ও খাদ্য শিল্প করপোরেশনের আওতায় বছরে ১৫টি চিনিকলের মাধ্যমে উৎপাদিত চিনির পরিমাণ ২ লাখ ১০ হাজার ৪৪০ মেট্রিক টন। চলতি অর্থবছরে ১ লাখ ৭ হাজার ১২৩ মেট্রিক টন চিনি উৎপাদিত হয়েছে। দেশীয় চিনিকলে উৎপাদিত চিনি দিয়ে দেশের চাহিদার প্রায় ১০ ভাগ পূরণ করা সম্ভব। এছাড়া বেসরকারিখাতে ছয়টি রিফাইনারি র’সুগার আমদানি করে বর্তমানে ১০ থেকে ১২ লাখ মেট্রিক টন রিফাইন্ড সুগার উৎপাদন করে। এতে মোট চাহিদার ৮০ ভাগ পূরণ করা হয়। অবশিষ্ট ১০ ভাগ সরকারের অনুমোদনক্রমে বিএসএফআইস’র মাধ্যমে সরাসরি হোয়াইট সুগার আমদানি করে চাহিদা মেটানো হয়।’

রুগ্ন শিল্পের পরিসংখ্যান নেই
সুকুমার রঞ্জন ঘোষের প্রশ্নের জবাবে শিল্পমন্ত্রী বলেন, ‘সারাদেশে কতটি শিল্প প্রতিষ্ঠানকে রুগ্ন হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে তার প্রকৃত সংখ্যা কিংবা কোনো পরিসংখ্যান শিল্প মন্ত্রণালয়ের কাছে নেই। তবে রুগ্ন শিল্পের তালিকা হালনাগাদ করার লক্ষ্যে মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে টাস্কফোর্স গঠন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে প্রথম দফায় ২৬৪ এবং দ্বিতীয় দফায় ৮০টি রুগ্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানের তালিকা ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগে পাঠানো হয়েছে। এ দুটি তালিকার মধ্যে সরকারি কোনো প্রতিষ্ঠান নেই।’

 

এই সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন পাঠকের মন্তব্য (0)    মোট দর্শন(2592)

You can switch to English and Bangla anytime by pressing Ctrl+y in windows and linux (Command+y in mac)



Can't read the image? click here to refresh

X
(4:50 AM) raj: sdf
(4:50 AM) raj: o k
(5:50 AM) raasdsdf: sddsfsdff
(5:50 AM) raasdsdf: df fsdf sdf
(5:50 AM) raasdsdf: df sdfsdf
(5:50 AM) raasdsdf: sdfsdf
(5:50 AM) raasdsdf: sdf sdf
(5:50 AM) raasdsdf: sdfa sdf sdfsf
(5:51 AM) raasdsdf: dsf sdfsdf sdf
(5:51 AM) raasdsdf: sdfas sdf sfsdf
(5:51 AM) raasdsdf: sdf sdfasdfasdf
(5:51 AM) raasdsdf: sd asfasdf
(5:51 AM) raasdsdf: sdf sfasdfsadfsdf
(5:51 AM) raasdsdf: sdf asdfsdf
(3:14 AM) raj: .
(9:37 AM) :
(5:49 AM) irfan: best Bangladeshi news paper
(8:49 AM) :
(11:25 AM) arnob: Nice web portal with huge features anybody here
(6:21 AM) :
(8:25 AM) rabin: hi
(2:12 PM) আমাদের বানারীপাড়া: আমাদের বানারীপাড়া
(1:32 PM) :
(9:25 PM) পরি: আমার বিয়ে হয়েছে এই চার মাস চলছে। আমার স্বামী আমাকে রেপ করে বিয়ে করেছেন।আমার স্বামী খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিবিএ তে পড়ছে। আমার বাবা মা দুজনই মৃত।এজন্য তার পরিবার থেকে মেনে নিবে না।ছেলে এখন অন্য মেয়ের সাথে রিলেশনে ব্যস্ত। আমার সাথে যৌতুক চেয়ে তালাকের হুমকি দিয়েছিল। ২ সপ্তাহ আগে জানতে পারলাম সে নাকি তালাক দিয়েছে কোন উকিলের কাছে যেয়ে দিয়েছে।কিন্তু আমার কাছে এখনো কোনো কাগজ বা নোটিস আসেনি। এই অবস্হায় আমি তাকে কিভাবে কঠোর শাস্তি প্রদান করিতে পারি। :-(
(9:30 PM) পরি: উল্লেখ্য তার সাথে ২ সপ্তাহ ধরে যোগাযোগ সম্পূর্ন বন্ধ। শেষ কথার দিন আমাকে হুমকি দিয়েছিল, আমি তাকে ফোন করলে আমার নামে হ্যারাজমেন্ট মামলা করবে। আমার কাছে বিয়ের লিগাল কাবিন আছে
(2:54 AM) :
(1:27 AM) :